আন্তর্জাতিক ক্রিকেটক্রিকেট

ইংল্যান্ডের বোলিং কোচের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলেন গিলেস্পি

এতদিন ইংল্যান্ড জাতীয় দলের বোলিং কোচ ছিলেন ওটিস গিবসন। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক এই ক্রিকেটারকে প্রধান কোচ বানিয়ে নিজেদের কাছে নিয়ে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। হুট করে নিয়ে যাওয়া অশোভন, তাতে অবশ্য ক্ষতিপূরণও দিতে হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকাকে। কিন্তু ক্ষতিপূরণে কী আর শিক্ষা লাভ করা যায়!

আর তাই ওটিস গিবসনের আনুষ্ঠানিক বিদায়ের আগেই ইংলিশ বোলারদের জন্য নতুন কোচের সন্ধানে নেমেছে ইসিবি। রিচার্ডসন কাজ করবেন চলমান ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ পর্যন্ত।

নতুন কোচ খুঁজতে মরিয়া ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ড কোচ হওয়ার জন্য প্রস্তাব দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তী ফাস্ট বোলার জ্যাসন গিলেস্পিকে। কিন্তু ইংল্যান্ডের সেই প্রস্তাবে এক বাক্যে ‘না’ করে দিয়েছেন গিলেস্পি।

অথচ এই ইংল্যান্ডেই কোচ হিসেবে দারুণ স্মৃতি ও সফলতা আছে তার। ক্রিকেট খেলা একেবারে ছেড়ে দেওয়ার পর কোচিং করানোকেই ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নেন গিলেস্পি। এরপর ২০১৪ ও ২০১৫ সালে ইয়র্কশায়ারের কোচ হয়ে কাজ করেন তিনি। অসাধারণ কোচিং দক্ষতা ও ব্যাপক অভিজ্ঞতার কারণে তাকে পাওয়ার জন্য মরিয়া ছিল ইংল্যান্ড।

বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের বোলিং কোচ হওয়ার প্রসঙ্গে আলাপকালে গিলেস্পি বলেন, ‘সত্যি বলতে আমি এটি নিয়ে ভাবছি না। আমি অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের সাথে চুক্তি করেছি। আসন্ন ডিসেম্বর জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিতব্য বিগ ব্যাশ নিয়ে আমরা রোমাঞ্চিত। বিগ ব্যাশ নিয়ে আমি বেশ কিছু প্রতিশ্রুতি দিয়েছি তাই ইংল্যান্ডের কোচ হওয়া-না হওয়া নিয়ে কারও সাথে কিছু বলতে চাই না আমি।’

তিনি আরও বলেন, ‘সাধারণত যখন আপনাকে কেউ কল করে এবং বলে আপনার সাথে আলাপ করতে চায়, আপনি শোনেন। কিন্তু সত্যি বলতে, এই ব্যাপারটায়, এমন কিছুই নেই যে আমি ভাবছি।’

ক্রিকেট খেলা ছাড়ার পর কোচ হিসেবে অভিজ্ঞতা অর্জনের ঝুলি নিয়ে ঘোরা সাবেক অস্ট্রেলীয় ফাস্ট বোলার আরও জানান, নিজস্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করে কোচিং অভিজ্ঞতা বাড়ানোই এখন তার লক্ষ্য।

এশিয়া কাপে তামিমের সাথে ওপেনিংয়ে ব্যাট করবে যে টাইগার

এশিয়া কাপ শুরু হতে আর মাত্র কয়েকদিন বাকি। আগামী মাসের ১৫ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৬ দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে এশিয়ার সবচেয়ে জমজমাট টুর্নামেন্ট এশিয়া কাপ ক্রিকেট। এশিয়া কাপে এবারের আসরে প্রথম রাউন্ডে বাংলাদেশের খেলা শ্রীলঙ্কা এবং আফগানিস্তানের সাথে। এ গ্রুপ রয়েছে ভারত পাকিস্তান সহ বাছাই পর্বে চ্যাম্পিয়ন দল।

প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কার। আর এই টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে আগামী ২৭ অাগস্ট থেকে অনুশীলন ক্যাম্প শুরু করবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। ইতিমধ্যেই অনুশীলনের জন্য ৩০ সদস্যের চূড়ান্ত দল করে ফেলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। টেস এবং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে পর এবার ওয়ানডে দল থেকে নিজের জায়গা হারাচ্ছেন ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান।

এছাড়াও ইনজুরির কারণে দলে এখনও অনিশ্চিত নাসির হোসেন। ৩০ সদস্যের দলে দেখা যেতে পারে একাধিক নতুন চমক। তবে বিসিবির ভিতরের খবর এশিয়া কাপের জন্য দল এক প্রকার চূড়ান্ত। ওপেনিং এ তামিম ইকবালের সাথে দেখা যেতে পারে নতুন মুখ। সে ক্ষেত্রে দল থেকে এবার পাকা-পাকি ভাবে জায়গা হারাচ্ছেন সৌম্য সরকার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে আনামুল হক বিজয় সুয়োগ পেলেও সিরিজে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। তাই এশিয়া কাপে তামিমের সাথে ওপেনিং এ দেখা যেতে পারে লিটন দাসকে। যদিও বাংলাদেশের ভাবনায় রয়েছেন আরেক ওপেনার ইমরুল কায়েস। তবে সবার থেকে একটু এগিয়ে রয়েছেন লিটন। বাংলাদেশ জাতীয় দলের নতুন কোচ স্টিভ রোডস এর প্রশংসায় ভাসিয়েছেন লিটন কুমারের।

এশিয়া কাপের আগে হাতের অস্ত্রোপচার করলে সাকিবের পরিবর্তে দলে চিন্তাভাবনায় আসতে পারেন মমিনুল হক। অন্যদিকে সাব্বির বাদ পড়ায় এবং নাসির হোসেন ইনজুরিতে থাকার কারণে টি-টোয়েন্টি পর ওয়ানডে দলে দেখা যেতে পারে বোলিং অলরাউন্ডার আরিফুল হককে। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেটের এখন বড় খবর আগামীকাল থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে মোহাম্মদ আশরাফুল এর উপর থেকে।

অনেকেই ধারণা করছেন এশিয়া কাপে দেখা যাবে মোহাম্মদ আশরাফুলকে। যদিও গত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে এক মৌসুমে ৫ সেঞ্চুরি করে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন আশরাফুল। তবে আশরাফুলের ৫ সেঞ্চুরি তো মন বলছে না নির্বাচকদের। বাংলাদেশ দলে সুযোগ পেতে হলে অলৌকিক কিছুই করতে হবে মোহাম্মদ আশরাফুলকে।

Related Articles

Close