অন্যরকম

খেলার মাঠেই মারা গেলেন আম্পায়ার

খেলার মাঠেই হৃদযন্ত্র বন্ধ হয়ে মারা গেলেন আন্তর্জাতিক টেনিস আম্পায়ার বিদ্যুৎ চক্রবর্তী (৪২)। বৃহস্পতিবার রাতে মাদারীপুর টেনিস মাঠে খেলার সময় অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে তাকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বিদ্যুৎ চক্রবর্তী খেলাধুলা ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন। মাদারীপুর থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক ইশারা পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেছেন।

মাদারীপুর পৌরসভার বটতলা এলাকার নীলকমল চক্রবর্তীর ছেলে বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। মাদারীপুর পৌর মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ বলেন, বিদ্যুৎ একজন আন্তর্জাতিক টেনিস আম্পায়ার ছিলো। তাকে হারিয়ে দেশ হারিয়েছে এক মূল্যবান সম্পদ।

পুরোই পাল্টে গেলো মেসির বার্সার চেহারা

শুক্রবার রাতে পর্দা উঠছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ (ইপিএল) ফুটবলের ২০১৮-১৯ মৌসুমের। প্রথম দিনে মাঠে নামবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও লিস্টার সিটি। এর আগে ইপিএলের দলবদলের একদম শেষদিনে ইংলিশ ক্লাব এভারটনে নাম লিখিয়েছেন বার্সেলোনার দুই খেলোয়াড়।

তারা হলেন কলম্বিয়ান ডিফেন্ডার ইয়েরি মিনা ও পর্তুগিজ মিডফিল্ডার আন্দ্রে গোমেজ। ইয়েরি মিনার দলবদলের সকল কার্যক্রম আরো আগে থেকেই গুঞ্জন বেরিয়েছিল। সে তুলনায় হুট করেই ক্লাব ছাড়লেন গোমেজ।

তবে ইয়েরি মিনা একেবারের জন্য ক্লাব ছাড়লেও এক মৌসুমের লোনে এভারটনে গিয়েছেন গোমেজ। বৃহস্পতিবার দলবদলের উইন্ডো বন্ধ হওয়ার ঠিক আগে এভারটনের সাথে আনুষ্ঠানিক চুক্তি করেন গোমেজ ও মিনা।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে মাত্র ১১.৮ মিলিয়ন ইউরোতে মিনাকে দলে ভিড়িয়েছিল বার্সেলোনা। এক মৌসুম খেলার আগেই তাকে এভারটনের কাছে বিক্রি করলো ৩০.২৫ মিলিয়ন ইউরোতে।

অন্যদিকে আন্দ্রে গোমেজের জন্য ২০ মিলিয়ন ইউরো দাবি করেছিল স্পেনের ক্লাবটি। তবে শেষপর্যন্ত তাকে এক মৌসুমের জন্য ২.২ মিলিয়ন ইউরোতে লোনে দলে নিয়েছে ইংলিশ ক্লাব এভারটন।

 

২০১৯ বিশ্বকাপে খেলবেন এটাই মাশরাফির স্বপ্ন

 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ হয়েছে কয়েকদিন আগেই। এই সিরিজে টেস্টে হতাশা থাকলেও সফল ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে। বহুদিন পর বিদেশের মাটিতে সিরিজ জিতে দেশে ফিরেছে টাইগার বাহিনী। তবে ছুটিতে থাকায় দেশে ফেরেননি মাশরাফি সহ ৪ ক্রিকেটাররা।

মাশরাফি বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রেই। গতকাল রাতে জ্যাকসন হাইটসের বেলোজিনো পার্টি হলে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। শো টাইম মিউজিকের আয়োজনে এই সভায় উপস্থিত হন অনেক বাংলাদেশি।

মাশরাফি এসময় বাংলাদেশের ক্রিকেটের বর্তমান অবস্থান ও ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই তিনি প্রবাসীদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, পৃথিবীর নানা প্রান্তে থাকা বাংলাদেশের ভালোবাসার জন্যেই তারা খেলেন। ফ্লোরিডায় বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশির খেলা দেখতে যাওয়ায় তিনি সবাইকে ধন্যবাদ জানান। বলেন, এত কষ্ট করে আপনারা নিজেদের শত ব্যস্ততার পরও, যেভাবে খেলা দেখতে গেছেন, তা সত্যিই দারুন’।

আলোচনার একপর্যায়ে তিনি জানালেন তিনি ওয়ানডে খেলাটা চালিয়ে যাবেন এবং ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলবেন এটাই তার স্বপ্ন। তবে তার টি-টোয়েন্টিতে ফেরার সম্ভাবনা নাই বলেও জানান।

Related Articles

Close