আন্তর্জাতিক ফুটবলফুটবল

চ্যাম্পিয়নস লিগেও মেসি-রোনালদোর প্রতিদ্বন্দ্বী সালাহ

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের গত মৌসুমের সেরা ফরোয়ার্ডের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে মেসি রোনালদোর প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়েছে মোহামেদ সালাহর। এছাড়া সেরা মিডফিল্ডার, সেরা গোলরক্ষক এবং সেরা ডিফেন্ডারের তালিকাও দেওয়া হয়েছে।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ভিন্ন ভিন্ন পজিশনের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচনের জন্য চ্যাম্পিয়নস লিগে অংশ নেওয়া ৩২ দলের কোচ ভোট দেবেন। এছাড়া ইউরোপের ক্রীড়া সাংবাদিক প্যানেলের ৫৫ জন ভোট দিতে পারবেন। ৩০ আগস্ট আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হবে। ওই দিনই ঘোষণা করা হবে সেরা খেলোয়াড়দের নামও।

সেরা ফরোয়ার্ডদের মধ্যে লিভারপুলকে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে তুলতে দারুণ অবদান রাখা মিসরের তারকা সালাহর নাম উঠে এসেছে। তিনি লিভারপুলের হয়ে ইউরোপের সেরা হওয়ার লড়াইয়ে ১০ গোল করেন। তবে রিয়াল মাদ্রিদকে পরপর তিনটি চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জেতানো রোনালদো গোল ব্যবধানে সালাহর থেকে অনেক এগিয়ে আছেন। মেসির থেকেও অনেক এগিয়ে আছেন সাবেক রিয়াল তারকা।

মেসি চ্যাম্পিয়নস লিগে বার্সেলোনার হয়ে ৬ গোল করেন। এরমধ্যে চেলসির বিপক্ষে শেষ ষোলোর ম্যাচে দুই লেগেই দারুণ গোল করেন তিনি। তবে রোমার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে বিদায় নেয় বার্সেলোনা।

ঠিক একই কারণে রোমার সাবেক গোলরক্ষক অ্যালিসন সেরা গোলরক্ষকের সংক্ষিপ্ত তালিকায় আছেন। চ্যাম্পিয়নস লিগে রোমা কোয়ার্টার ফাইনালে বার্সেলোনাকে হারায়। সেমিফাইনালে লিভারপুলের কাছে হারলেও রোমাকে সেমিতে তুলতে বড় ভূমিকা রাখেন অ্যালিসন। এছাড়া সেরা গোলরক্ষকের তালিকায় আছেন রিয়ালের কেইলর নাভাস এবং সাবেক জুভেন্টাস তারকা বুফন।

সেরা মিডফিল্ডারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় আছেন রিয়ালের দু’জন। কোন দু’জন তা অবশ্য বুঝতে কঠিন হওয়ার কথা নয়। রিয়াল মাদ্রিদের মাঝমাঠের প্রাণ লুকা মডরিচ এবং টনি ক্রুস। এছাড়া তৃতীয় সেরা মিডফিল্ডারের তালিকায় আছেন ম্যানসিটির ডি ব্রুইনি।

তবে সেরা রক্ষণভাগের সংক্ষিপ্ত তালিকা শুধু রিয়ালময়। এখানে অন্য কোন ক্লাবের রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ঢুকতে পারেনি। রিয়াল মাদ্রিদের সের্গিও রামোস আছেন তালিকায়। আছেন রিয়ালের ফ্রান্স ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারানে এবং ব্রাজিলের মার্সেলো।

Related Articles

Close