আন্তর্জাতিক ফুটবলফুটবল

এবার মার্সেলোকে দলে চায় জুভেন্টাস

রিয়াল মাদ্রিদে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সবচেয়ে ভালো বন্ধু মার্সেলো। দুজনের বন্ধুত্বের খবর হরহামেশাই আসছে সংবাদ মাধ্যমে। রোনালদোর ক্লাব ছাড়ার যখন গুঞ্জন চলছিলো, তখন দলের অন্যান্য তারকারা বিভিন্ন সময়ে বলেছিল, আশা করি রোনালদো থাকবে। কিন্তু মার্সেলোর কথাই ছিল অন্যরকম। সে বলেছিল, যদি রোনালদো চলে যায়, তাহলে আমিও ব্যাগ গুছিয়ে রেখেছি।

এবার ইতালিয়ান দৈনিক জানালো সেই খবরটিই। ফুটবল ইটালিয়া নামে এই পত্রিকাটি জানিয়েছে, রোনালদোকে কেনার পর মার্সেলোকে কেনার আগ্রহও প্রকাশ করেছে জুভেন্টাস। তবে সেটা হবে যদি সান্দ্রো জুভেন্টাস ছেড়ে যায়।

অন্য আরেকটি দৈনিক পত্রিকা জানিয়েছে, আলেক্স সান্দ্রো হয়তো পিএসজি, চেলসি বা ম্যানসিটিতে চলে যেতে পারেন। আর যদি সেটা হয় তাহলে তার জায়গায় মার্সেলোকে কেনার ইচ্ছা জুভেন্টাসের।

মার্সেলোর সাথে ২০২২ সাল পর্যন্ত চুক্তি আছে রিয়াল মাদ্রিদের। ৩০ বছর বয়সী এই তারকাকে কিনতে হলেও অনেক টাকাই খরচ করতে হবে দলটিকে।

 

সবাইকে ছাড়িয়ে গেলেন ডি মারিয়া!

 

দল আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়েছে সুপার সিক্সটিনই। কিন্তু পরিসংখানের দিক দিয়ে এক দিক দিয়ে সবাইকে ছাড়িয়ে গেলেন ডি মারিয়া। সেটি হচ্ছে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে গ্রেট খেলোয়াড়দের সাথেই খেলা হয়ে গিয়েছে ডি মারিয়ার।

মেসি ডি মারিয়া ঝুটিঃ জাতীয় দল থেকেই মেসির সাথে ডি মারিয়ার খুব ভালোই সম্পর্ক। এক সাথেই দুইজন খেলছেন জাতীয় দলের হয়ে।

নেইমার-ডি মারিয়াঃ নেইমার এবং ডি মারিয়া বর্তমান দুইজনেই একসাথে খেলছেন পিএসজির হয়ে।

ডি মারিয়া-রোনালদোঃ ডি মারিয়া রোনালদো দুইজনেই একসাথে খেলেছেন রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে। দুইজনের মাঝেই বেশ ভালো সম্পর্কই ছিলো।

ডি মারিয়া-রুনি-ইব্রাহিমোভিচঃ ইংল্যান্ডের গ্রেট রুনি এবং সুইডেনের ইব্রাহিমোভিচ দুইজনের সাথেই এক ক্লাবে খেলার সুযোগ পেয়েছেন ডি মারিয়া।

Related Articles

Close