আন্তর্জাতিক ক্রিকেটক্রিকেট

টি-টোয়েন্টিতে কোহলিকে পেছনে ফেলে দিলো এ নারী ক্রিকেটার

আন্তর্জাতিক টি -টোয়েন্টিতে বিরাট কোহলির সর্বমোট রান ১৯৮৩। সেই রেকর্ডকে ভেঙে দিলেন এক ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটার। তিনি মিতালি রাজ। টি-টোয়েন্টি ইনিংসে তাঁর সর্বমোট রান ২০১৫। অর্থাৎ, এক্ষেত্রে তিনি কোহলির থেকে ৩২ রানে এগিয়ে রয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার কুয়ালালামপুরে ভারত-শ্রীলঙ্কা টি টোয়েন্টি এশিয়া কাপ ম্যাচে মিতালি এই রেকর্ড গড়লেন।

৭৪ টি টি-টোয়েন্টি ওয়ান ডে মিলে মিতালির সর্বমোট রান ২০১৫। এর মধ্যে আছে ১৪টি হাফ সেঞ্চুরি। সর্বোচ্চ রান ৭৬ এ নট আউট এবং গড় রানের মাত্রা ৩৮.০১। এখানে অবশ্য কোহলি এগিয়ে রয়েছেন মিতালির থেকে। তাঁর গড় রানের মাত্রা ৫০.৮৫।

৩৫ বছরের মিতালি ভারত-শ্রীলঙ্কা ম্যাচে ২৩ রান করেন। যদিও ভারত সেই ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ৭ উইকেটে পরাজিত করে। আগের ম্যাচেই বাংলাদেশের কাছে পরাজিত হয়েছে ভারত, কাজেই এটাই ছিল তাদের মরণবাঁচন ম্যাচ।

বিশ্বে মহিলা ক্রিকেটের প্রতিযোগিতায় মিতালি ৭ নম্বরে দাঁড়িয়ে। তাঁকে টেক্কা দিয়ে যাঁরা তাঁর আগে আছেন তাঁরা যথাক্রমে শার্লোতে এডওয়ার্ডস(২৬০৫), স্টেফানি টেলর(২৫৮২), সুজি বেটস(২৫১৫)।

 

টানা তিন ম্যাচে ৪০০ করে নিউজিল্যান্ডের ইতিহাস

 

আয়ারল্যান্ডের মাঠে গিয়ে আইরিশ মেয়েদের সাথে রীতিমতো ছেলে-খেলায় মেতে উঠেছে নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের ৩টিতেই চারশো পেরিয়েছে নিউজিল্যান্ডের ইনিংস। নারী ক্রিকেটে তো নয়ই, পুরুষদের ক্রিকেট ইতিহাসেও এমন রেকর্ড নেই আর কোন দলের।

বুধবার সিরিজের শেষ ম্যাচে অ্যামেলিয়া কারের অপরাজিত ডাবল সেঞ্চুরিতে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ৪৪০ রান করেছে নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা। মেয়েদের ইতিহাসের এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ২৩২ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন অ্যামেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়ার বেলিন্ডা ক্লার্কের ২১ বছর পুরনো রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ড গড়লেন অ্যামেলিয়া। ১৪৫ বলের ইনিংসে ৩১টি চার এবং ২টি ছক্কা মেরেছেন তিনি। এছাড়া তিন নম্বরে নামা লেইপ কাসপেরেকের ব্যাট থেকে এসেছে ১১৩ রান। দ্বিতীয় উইকেটে এই দুজন মিলে যোগ করেন ২৯৫ রান।

এর আগে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ৪৯০ রানের সংগ্রহ করে ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহের রেকর্ড করেছিল নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা। পরে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে কিউই মেয়েরা ৪৯.৫ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে করে ৪১৮ রান। তিন ম্যাচ মিলে মোট ৫টি সেঞ্চুরি করেছে নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা।

Related Articles

Close