আন্তর্জাতিক ক্রিকেটক্রিকেট

সবাইকে অবাক করে হঠাৎই অবসরে এবি ডি ভিলিয়ার্স

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স। এবি ডি ভিলিয়ার্স ফেসবুক ভেরিফাইড পেজে এক ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তিনি ব্যাপারটি নিশ্চিত করেন।

সবাই অবাক করে হঠাৎই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ব্যাটসম্যান।

টু্‌ইটে তিনি বলেছেন “সত্যি বলতে আমি ক্লান্ত”

ডি ভিলিয়ায়ার্স বলেছেন, ‘তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া হিসেবে সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি। ১১৪ টেস্ট, ২২৮ ওয়ানডে ও ৭৮ টি-টোয়েন্টি খেলার পর মনে হয়েছে, এখন অন্যদের দায়িত্ব নেওয়ার সময়। সত্যি বলতে আমি ক্লান্ত।’

এবি ডি ভি জানালেন, ‘এটা একটি কঠিন সিদ্ধান্ত, আমি এটা নিয়ে দীর্ঘ এবং কঠিন চিন্তা করেছি। এখনো ভালো ক্রিকেট খেলার সময়ই আমি অবসর গ্রহণ করতে চাই। ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুর্দান্ত সিরিজ জয়ের পর মনে হয়েছে, সরে যাওয়ার এটাই সঠিক সময়।’

টু্‌ইটে ভিডিওর ক্যাপশনে এমনটি লিখে তিনি ‘এটা কোনো ব্যাপার না যে, প্রোটিয়াদের হয়ে আমি কখন কোন ফরম্যাটে খেলেছি। আমি দ.আফ্রিকার কোচ ও স্টাফদের প্রতি কৃতজ্ঞ যে, তারা আমাকে প্রচুর সমর্থন দিয়েছে। সবচেয়ে বড় ধন্যবাদ দিতে চাই আমার ক্যারিয়ার জুড়ে যারা আমার সতীর্থ হিসেবে ছিল। আমার এই মুহূর্তে দেশের বাইরে খেলার কোনো পরিকল্পনা নেই। আমি ঘরোয়া দল টাইটান্সের হয়ে থাকবো এবং দক্ষিণ আফ্রিকা ও ফাফ ডু প্লেসিসে (বর্তমান অধিনায়ক) সমর্থন দিয়ে যাবো।

 

ফাইনালে উঠতে পেরে ডু’ প্লেসির প্রশংসা করে যা বললেন ধোনি

 

হায়দ্রাবাদের বিপক্ষে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে ১৪০ রান তাড়া করতে নেমে হিমশিম খেতে হয়েছে ধোনির চেন্নাইকে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকান তারকা ফ্যাফ ডু’ প্লেসির ৪২ বলে অপরাজিত ৬৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংসের ফলে হায়দ্রাবাদকে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে ধোনির চেন্নাই। এর ফলে ডু’ প্লেসির প্রশংসা করেন চেন্নাইয়ের অধিনায়ক ধোনি।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ফ্যাফের ইংনিসটা হচ্ছে সেইরকম একটা ইনিংস যেখানে অভিজ্ঞতা কাজে লাগে। এটা কখনোই সহজ ছিল না। বিশেষ করে যখন আপনি অনেকগুলো ম্যাচ খেলেননি। আমি সবসময় বলতাম ব্যাটের সঙ্গে সঙ্গেই নিজের মনকে ট্রেইনড করতে হবে। আপনাকে বুঝতে হবে আপনার কাজটা কি সেটা বুঝে খেলে যেতে হবে৷ ফাফ সত্যিই অসাধারণ খেলেছে।’

এছাড়াও ম্যাচ নিয়ে ধোনি বলেন, ‘ম্যাচ জিতলে আমি সবসময় খুশি হই৷ পয়েন্ট টেবলের দু’নম্বরে থাকার দরুন আমাদের কাছে আরো একটা সুযোগ ছিল৷ ওরা (সানরাইজার্স) অসাধারণ বল করেছে৷ ভুবি ভালো করেছে ওকে যোগ্য সঙ্গত দিয়েছে রশিদ খান। মিডল অর্ডারে চারটে উইকেট হারানো চাপে ফেলবেই। ওদের বোলিং স্কোয়াডে রশিদ সত্যিই অসাধারণ বোলার। এরকম ম্যাচ জেতা আনন্দের কিন্তু সঙ্গে আমাদের নিজেদের ভুলগুলো শুধরে নিতে হবে।

Related Articles

Close