আন্তর্জাতিক ফুটবলফুটবল

নারায়ণগঞ্জে ব্রাজিল ভক্তের একি কাণ্ড

আসন্ন ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ আসরের পর্দা উঠতে যাচ্ছে আগামী ১৪ই জুন। আর ১৫ই জুলাই ফাইনালের মাধ্যমে পর্দা নামবে এ আসরের। আর এ আসরকে কেন্দ্র করে দুই ভাগে বিভক্ত বাংলাদেশের ভক্তরা। তবে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ছাড়াও জার্মানি, স্পেন ও ফ্রান্স ঘিরেও কিছু সমর্থক আছে বাংলাদেশে। একইসঙ্গে বাংলাদেশের বেশিরভাগ ভক্তই চান ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা ফাইনাল খেলুক।

আর সেই প্রতিযোগিতায় নাম লেখিয়েছে তারা। আর সেই প্রতিযোগিতায় রয়েছেন নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার লালপুর এলাকার বাসিন্দা জয়নাল আবেদিন ওরফে টুটুল। ব্রাজিলের ভক্ত তিনি। দলকে ভালোবেসে নিজের ছয়তলা বাড়িটি ব্রাজিলের পতাকার রঙে রাঙিয়েছেন তিনি। এরই মধ্যে তার এই কান্ড দেশ থেকে বিদেশেও ভাইরাল হয়ে গেছে।

তবে তার এই কাজটি এখনকার নয়। বরং ২০১০ সালের বিশ্বকাপের সময় তিনি প্রথম ব্রাজিল বাড়ি সাজিয়েছিলেন। সেসময় তার বাড়িটি ছিল দোতলা। তবে তার এই ব্রাজিলপ্রীতি পাড়া-প্রতিবেশীরা ভালো চোখে দেখে নি। ব্রাজিল যখন নেদারল্যান্ডের কাছে হেরে যায় তখন তারা ঢিল মেরে বাড়ির কাচ ভেঙে ও গোবর ছোড়ে বাড়ির রঙটা নষ্ট করে দিয়েছিলেন। এমনকি অনেকেই তাকে পাগল বলেও ডেকেছেন।

তবে তিনি থেমে থাকেননি। বরং ব্রাজিলের প্রতি ভালোবাসা থেকে আগের বাড়িটি ভেঙ্গে তা পরিণত করেছে ছয়তালায়। এছাড়াও বাড়ির ভিতরে আধুনিক প্রযুক্তিসহ সিসি ক্যামেরার লাগিয়েছেন তিনি। বাড়িটি ব্রাজিলের রঙ্গে রাঙানোর পাশাপাশি বাড়ির ছাদে উড়ছে ব্রাজিলের পতাকা। পাশাপাশি বাড়ির নাম দিয়েছেন ব্রাজিল বাড়ি। তার বাড়ির এই ঝলক দেখতে প্রতিদিনেই ভিড় জমাচ্ছেন দূর-দুরান্ত থেকে আশপাশের লোকজন।

 

সৌম্যের ৫ ম্যাচে ৫০ কাজে লাগলেও, কাজে লাগেনি শান্তর ১৬ ম্যাচে ৭৫৯ রান

 

ডিপিএলে ব্যাট আহতে দারুন পারফর্ম করেছিলেন তরুন ক্রিকেটার শান্ত। হয়েছিলেন এবারের আসরের সেরা রান গেটার। কিন্তু তারপরেও জাতীয় দলের দরজা খুলে নেই শান্তর জন্য। অপরপক্ষে ডিপিএল সুপার ফ্লপ সৌম্য ৫ ম্যাচে ৫০ রান করেও জায়গা পেয়েছেন জাতীয় দলে।

নান্নু বলেন, ‘শান্তকে নিয়ে আমরা টি টোয়েন্টিতে খুব বেশি চিন্তা করছি না। ওকে হয়তো সামনে আমরা লঙ্গার ভার্সনের ক্রিকেটের জন্য কিংবা ৫০ ওভারের ক্রিকেটের জন্য চিন্তাভাবনা করবো।’

আর মিথুনের ব্যাপারটি বলতে গেলে ওর জায়গায় এখন অনেক ক্রিকেটার আছে যারা ভালো খেলছে। গত টুর্নামেন্টে যেটি আমরা শেষ করে এসেছি সেখানে আমরা যথেষ্ট ভালো পারফর্মার পেয়েছি। এই কারণেই তাঁকে বিবেচনা করা হয়নি।’

এদিকে নিদাহাস ট্রফিতে দলের সবার পারফরমেন্স উজ্জ্বল মানের থাকলেও অনেকটাই ম্লান ছিল টাইগার ওপেনার সৌম্য সরকারের পারফরমেন্স। পাঁচটি ম্যাচে তার রান যথাক্রমে ১৪, ২৪, ১, ১০ এবং ১।

কিন্তু আসন্ন আফগানিস্তান সিরিজে আবারো দলে রাখা হয়েছে তাকে। এদিকে সৌম্যকে দলে রাখা নিয়ে স্বভাবতই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে ক্রিকেট বোর্ডকে। উত্তরে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানান,

‘সৌম্যকে নিয়ে আমাদেরও একটি প্রশ্ন ছিলো। যেহেতু শর্টার ভার্সনে এখন পর্যন্ত যতগুলো খেলোয়াড়কে নিয়ে চিন্তা করি ওর চিন্তাটা সবসময় আগে চলে আসে। আমি ব্যাক্তিগতভাবে মনে করি তার এখন জাতীয় দলকে দেওয়া মতো অনেক কিছুই আছে।

Related Articles

Close