আইপিএলক্রিকেট

ইংরেজী বা হিন্দি নয়, হায়দরাবাদে বাংলাতেই কথা বলেন সাকিব

সাকিবের আইপিএল শুরুর পর থেকে আর পিছুটান হয়নি। টানা সাত মৌসুক কলকাতার হয়ে খেলার পর এবার দল পরিবর্তন করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদে খেলছেন তিনি।

শুধু খেলাই নয় নিয়মিত আলো ছড়াচ্ছেন বাংলাদেশের হয়ে। সাকিবকে সবসময় সাপোর্ট দিয়েছেন তার সতীর্থরা। তবে সবচেয়ে ভালো লাগার খবর হলো- ইংরেজী বা হিন্দি নয় বাংলা ভাষাতেই কথা বলছেন তিনি।

হায়দরাবাদে বাংলাতে কথা বলতে পেরে সাকিব ও বেশ পুলকিত। ক্রিকবাজকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে সাকিব বাংলাতে কথা বলার বিষয়টি প্রকাশ করেন।

তবে সাকিবের বাংলা বলার সঙ্গী রয়েছেন সানরাইজার্সের আরো দুই খেলোয়ার। সতীর্থ ঋদ্ধিমান সাহা ও শ্রীবৎস গোস্বামীও বাঙালী হওয়ায় বেশ জমেছে তাদের।

তিন জনের বেপার নিয়ে সাকিব বলেন, ‘আমরা তিনজন কথা বলার সময় বাংলায়ই বলছি। ঋদ্ধি ও গোস্বামী এ দুজনের সঙ্গে আমি সব সময়ই বাংলায় কথা বলি। তাদের সঙ্গে ইংরেজি বা হিন্দিতে কথা বলার প্রশ্নই ওঠে না।’ সময়টা বেশ ভালোই যাচ্ছে সাকিবের তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।

 

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাদের মধ্যে ঢুকেছে বাংলাওয়াশের ভয়

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে চলতি বছরের শেষের দিকে বাংলাদেশের একটি টেস্ট সিরিজ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া সিরিজটি বাতিল করেছে। সিরিজ আয়োজনের জন্য তাদের আর্থিক সংকটের কথা উল্লেখ করে সিরিজটি বাতিল করছে বলে জানিয়েছে দেশটি।

চলতি বছরের আগস্ট-সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে দুটি টেস্ট এবং তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানিয়েছে যে সিরিজটি আর্থিক দিক দিয়ে তাদের জন্য খুব একটা উপযোগি নয়।

তবে কি অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাদের মধ্যে বাংলাওয়াশের ভয় ঢুকেছে। কেননা সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের কাছে কোন দলই নিরাপদ নয়। যে কোন টার্গেট বাংলাদেশ অতিক্রম করতে পারে। তবে বিষয়টি তার নয়।

মূলত আগস্ট-সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে চলবে ফুটবল মৌসুম। আর ফুটবল মৌসুমের সময় অস্ট্রেলিয়ান টেলিভিশন সম্প্রচারকরা ক্রিকেট সিরিজ সম্প্রচারে আগ্রহী নয়। আর তাই সফরটি ‘অর্থনৈতিকভাবে ফলপ্রসূ’ হতো না বলেই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে জানিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন-ক্রিকইনফো জানিয়েছে এই সফরের পরিবর্তে ২০১৯ বিশ্বকাপের পর বাংলাদেশ সফর করতে পারে অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে এ প্রসঙ্গে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরি বলেন, ‘আমরা কিছু প্রস্তাব দিয়েছি’ তাদের জবাবের অপেক্ষায় আছি। তবে অন্যদিকে সিরিজ বাতিল প্রসঙ্গে সিএর প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড বলেন, ‘সিরিজের সময়ের কারণেই তা বাতিল করা হয়েছে।

Related Articles

Close