ক্রিকেটবাংলাদেশ ক্রিকেট

তাসকিন-মোসাদ্দেক-ইমরুলকে নিয়ে বিসিবি পাড়ায় গুঞ্জন!

দীর্ঘদিন পর আবারতো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মাঠে নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। সেই ম্যাচের আগে এখনো দল ঘোষনা করেনি বাংলাদেশ দল। তবে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে বাংলাদেশ দল থকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন তাসকিন, ইমরুল এবং মোসাদ্দেক।

যদিও সেটা আনুষ্ঠানিভাবে জানানো হয়নি। আপাতত ৩১ জন অনুশীলন করছেন জাতীয় দলে জায়গা পাওয়ার জন্য। ৩১ জনের দল থেকে কাটাছেড়া শুরুও হয়ে গেছে ইতোমধ্যে। মূল দলও ঘোষণার কথা রয়েছে আগামী ২০ তারিখে। এরপর থেকেই শুরু হবে মূল দলের প্রস্তুতি পর্ব।

তার আগেই বিসিবি পাড়ায় গুঞ্জন উঠে গেছে মূল দল থেকে বাদ পড়ছেন পেসার তাসকিন আহমেদ আর ওপেনার ইমরুল কায়েস।

বাদ অবশ্য পড়ারই কথা। এই দুজনের শেষ কয়েক ম্যাচের গড় আহামরি কিছুরই তো ইঙ্গিত করে না। সবশেষ শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত নিদাহাস ট্রফিতে খেলেছিলেন তাসকিন। সেখানে দুই ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলেও দুই ম্যাচে উইকেট পেয়েছিলেন দুটি আর রান দিয়েছেন দু’হাত ভরে।

আর ইমরুলকে টি-২০ দলে নেওয়ার প্রশ্ন তো রয়ে গিয়েছে সে অনেক দিন আগের থেকেই। আর মোসাদ্দেককে যে আর পারফর্ম করেই দল ফিরতে হবে তা আগেই জানিয়েছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাচক।

 

তাহলে কী এই কারণে টেস্ট ক্রিকেটে আর থাকছে না টস!

 

ক্রিকেটের একটা অবিচ্ছেদ্য অংশ ‘টস’। সব ফরম্যাটেই টসের পরে ম্যাচের সূচনা হয়। তবে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় ফরম্যাট- টেস্টে ভবিষ্যতে টস না থাকার সম্ভাবনা তৈরী হয়েছে।

পাঁচ দিনের খেলা টেস্টে স্বাগতিকরা নিজেদের ইচ্ছেমতো পিচ বানিয়ে সুবিধা নিয়ে থাকে। অস্ট্রেলিয়া,ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকায় যেমন পেসার সহায়ক উইকেট বানানো হয় তেমনি উপমহাদেশে প্রেক্ষাপট উল্টো।

বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কায় সাধারণত সুবিধা পান স্পিনাররা। অন্যদিকে স্বাগতিক দল টসে জিতলে ম্যাচের ভাগ্য অনেক ক্ষেত্রেই টসের মাধ্যমেই নির্ধারণ হয়ে যায়। টেস্টে আরও ভারসাম্য আনতে টস প্রথা তুলে নেবার কথা ভাবছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

চলতি মাসের শেষে ভারতের মুম্বাইয়ে হবে আইসিসির বৈঠক। এতে টেস্টে টস প্রথা নিয়ে বিষদ আলোচনা হবে। যদি টস প্রথা উঠে যায়, তাহলে টেস্টে সফরকারী দল আগে বোলিং কিংবা ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নিতে পারবে। আগামী বছর শুরু হবে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। টেস্টের এই বড় আয়োজনে টস প্রথা না থাকার সম্ভাবনা আছে। এমনকি আগামী বছরের অ্যাশেজেও টস বাতিল করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

সম্প্রতি ক্রিকইনফো এই প্রসঙ্গে লিখেছে, ‘টেস্টে এখন স্বাগতিক দলগুলো উইকেট যেভাবে বানায়, তা উদ্বেগজনক। কমিটির একাধিক সদস্য বিশ্বাস করেন, প্রতিটি টেস্টেই টসের সিদ্ধান্ত সহজাতভাবেই সফরকারী দলকে উপহার দেওয়া উচিত; যদিও কমিটিতে এর দ্বিমত পোষণকারীরাও রয়েছেন।’

চলতি মাসের ৩১ তারিখ লর্ডসে হবে বিশ্ব একাদশ বনাম উইন্ডিজের মধ্যকার চ্যারিটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। সেই ম্যাচের জন্য বিশ্ব একাদশের দলে ছিলেন বাংলাদেশের দুই ক্রিকেটার- সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল।

কিন্তু গতকাল (১৬ মে) হঠাতই এই চ্যারিটি ম্যাচ না খেলার সিদ্ধান্ত নেন সাকিব। ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) বিষয়টি নিশ্চিত করলেও সেটার কোনও কারণ উল্লেখ করে নি। তবে জানা গেছে, টানা ম্যাচ খেলার ধকল কাটাতেই এই ম্যাচ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন সাকিব।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close