আন্তর্জাতিক ফুটবলফুটবল

জাতীয় দলে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের পারফর্মেন্স

ম্যানসিটির সেরা ফরোয়ার্ড সার্জিও আ্যাগুয়েরু। বার্সালোনার সেরা তারকা লিওনেল মেসি। জুভেন্টাসের সেরা ফরোয়ার্ড হিগুইন ও দিবালা। ইন্টার মিলানের সেরা ফুটবলারই ইকার্দি। পিএসজির সেরা তারকাদের একজন ডি মারিয়া।

দুর্দান্ত সব তারকারাই থাকছে আর্জেন্টিনার আক্রমন ভাগে। চলতি মৌসুমে ইন্টার মিলানের সেরা গোলদাতা হয়েছেন ইকার্দি। দুর্দান্ত ফর্মে আছেন দিবালা, হিগুইন, অ্যাগুয়েরু কিংবা ডি মারিয়ারা। তবে জাতীয় দলে আসলেই কেন যেন অন্যরুপ দেখা যায় তাদের।

জাতীয় দলে ২০১৬ সালের পর থেকে কোন তারকা কত ম্যাচে কত গোল দিয়েছে দেখেনিন একনজরে।

১. দিবালা – ১২ ম্যাচে কোন গোল করতে পারেনি।

২. হিগুইন- ৮টি ম্যাচ খেলে গোর করেছেন মাত্র ১টি।

৩. সার্জিও অ্যাগুয়েরু ৭টি ম্যাচ খেলে গোল করেছেন ২টি।

৪. ডি মারিয়া- ১৭টি ম্যাচ খেলেছেন। গোল করেছেন মাত্র ১টি।

৫. লিওনেল মেসি ১০ টি ম্যাচে গোল করেছেন ৬টি যার প্রতিটিই ছিল বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে।

মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা যেন লবন ছাড়া তরকারী। একেবারেই অসহায় হয়ে পড়ে প্রতিপক্ষের সামনে। সেটা সর্বশেষ ইতালির বিপক্ষে দেখা না গেলেও দেখা গিয়েছে স্পেনের বিপক্ষে।

বাংলাদেশের সেই দুর্বল জায়গাতেই আঘাত আনতে পারে আফগানিস্তান

আর কিছুদিন পরেই শুরু হবে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান টি-২০ সিরিজ। সেই সিরিজে বাংলাদেশের কার্স হয়ে দাঁড়াতে পারেন মুজিব-রশিদরা।

বাংলাদেশের প্রধান দুর্বলতা হলো বাংলাদেশ এর ব্যাটিংরা স্পিন বল খেলতে পারদর্শী কম। প্রায় খেলায় দেখা যায় বিপক্ষে দলের ফাস্ট বোলার দের বাংলাদেশ দলের ব্যাটসম্যানরা ভালোমতোই খেলে। যখনই স্পিনার রা বল করতে আছে তখনই দেখা যায় বাংলাদেশের ব্যাটিংদের ধস।

বর্তমানে রশিদ খান বিশ্বের সেরা লেগ স্পিনার। তবে তাকে খুব ভালোভাবেই খেলছেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু নতুন আইপিএল কাপানো স্পিনার মুজিবকে খেলায় হয়নি বাংলাদেশী ব্যাটসমযানরা। সর্বশেষ আইপিএলে মুজিবের বিরুদ্ধে ব্যাটিং করেছিলেন সাকিব। সেই মুজিবের বলেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন তিনি।

 

বিশ্ব একাদশে সাকিবের উত্তরসূরি তরুণ তুর্কি!

আইসিসি বিশ্ব একাদশ ৩১ মে একটি প্রীতি ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামবে। বাংলাদেশি তারকা ক্রিকেটার বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান না থাকায় তার পরিবর্তে ‘হারিকেন রিলিফ টি-টোয়েন্টি’ চ্যালেঞ্জ নামে প্রীতি ম্যাচে মাঠে নামবেন নেপালি তরুণ লেগস্পিনার সন্দীপ ল্যামিচানে।

লর্ডসের মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় থাকা সে ম্যাচে সাকিবের সঙ্গে বাংলাদেশ থেকে সুযোগ হয়েছিল উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালেরও। তামিম থেকে গেলেও শেষমেশ আর থাকছেন না সাকিব। বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক একাদশ থেকে প্রত্যাখ্যান করিয়ে নিয়েছেন নিজের নাম। তবে তিনি বাদে বাকি সব খেলোয়াড় প্রস্তুত হচ্ছেন মাঠে নামতে।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) শেষই হবে ২৭ মে। তার মানে লর্ডসে মাঠে নামার আগে সাকিব সময়ই পাচ্ছেন মাত্র চার দিন। এই ম্যাচের ঠিক পরপরই আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ভারতে উড়ে যাবে বাংলাদেশ দল। সাকিবদের এর পরের মিশন জুলাইয়ে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাঠে। ফলে টানা খেলার এই ধকল সামলে নিতেই যে বাঁহাতি অলরাউন্ডার সরিয়ে নিয়েছেন নিজের নামটা, সে অনুমিতই।

গত বছর ঘূর্ণিঝড় মারিয়া ও ইরমায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পাঁচ ক্যারিবীয় স্টেডিয়াম। আইসিসি উইন্ডিজ দলের বিপক্ষে তাই সিদ্ধান্ত নেয় লর্ডসের মাঠে একটি প্রীতি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আয়োজনের। সে ম্যাচ থেকে প্রাপ্ত সব অর্থই ব্যয় করা হবে পাঁচ ক্যারিবীয় মাঠ পুনর্বাসনে। ম্যাচে বিশ্ব একাদশকে নেতৃত্ব দেবেন ইংলিশ ওয়ানডে অধিনায়ক ইয়ন মরগান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচের বিশ্ব একাদশ: তামিম ইকবাল, ইয়ন মরগান (অধিনায়ক), দিনেশ কার্তিক, হার্দিক পান্ডিয়া, শহিদ আফ্রিদি, শোয়েব মালিক, লুক রঙ্কি, মিচেল ম্যাকগ্লেনাহান, থিসারা পেরেরা, রশিদ খান ও সন্দীপ ল্যামিচানে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close