ক্রিকেটবাংলাদেশ ক্রিকেট

বিসিবির সাথে কাজ শুরু করে দিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার কিংবদন্তী ক্রিকেটার কারস্টেন

শীঘ্রই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের উপদেষ্টা হিসেবে যোগ দিতে ঢাকায় আসছেন দক্ষিণ আফ্রিকার কিংবদন্তী ক্রিকেটার গ্যারি কারস্টেন। দুই দিন আগেই এই বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

তবে অবাক করা তথ্য হলো ঢাকায় আসার আগেই নাকি কারস্টেন কাজ শুরু করে দিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য। আর সেই কাজটি কি সেটাও অবশ্য খোলাসা করেছেন বিসিবির প্রধান। মূলত বাংলাদেশ দলের পরবর্তী কোচের সম্ভাব্য একটি তালিকা তৈরি করতে কারস্টেনকে বলেছে বিসিবি। এই প্রসঙ্গে পাপন কয়েকদিন আগে বলেছিলেন, ‘কারস্টেন এর মধ্যেই আমাদের উপদেষ্টা হিসেবে কাজ শুরু করে দিয়েছেন। তিনি আমাদের ‘নিড অ্যানালাইসিস’ করে কোচ খুঁজছেন। এরই মধ্যে তিনি অনেকের সাক্ষাৎকারও নিচ্ছেন। তাঁদের মধ্য থেকেই আমাদের জন্য যথার্থ হয়, এমন কোচদের একটি তালিকা কারস্টেন ঢাকায় এসে দেবেন।’

বিসিবি প্রধানের এরূপ বক্তব্যের পর ধরেই নেয়া যায় টাইগারদের পরবর্তী কোচ নিয়োগ দেয়া হচ্ছে প্রোটিয়া এই কিংবদন্তীর পছন্দ অনুসারেই। তবে পুরোপুরি অবশ্য কারস্টেনের ওপর নির্ভর করছে না বিসিবি।

জানা গেছে এক্ষেত্রে বিসিবিও একটি তালিকা তৈরি করবে। আর কারস্টেন এবং বিসিবির তৈরিকৃত তালিকা যাচাই বাছাই করেই চূড়ান্ত করা হবে সাকিব তামিমদের কোচ। পাপনও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন,

‘কারস্টেনের পাশাপাশি আমরাও একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা করে রেখেছি। ওই তালিকায় আছেন তিনজন কোচ। কারস্টেনকে আমরা সেই তালিকাও দেব। এটার সঙ্গে নিজেরটা মিলিয়ে উনি আমাদের জন্য একজন সবচেয়ে উপযুক্ত কোচের নাম সুপারিশ করবেন।’

এদিকে তিনজনের মধ্যে কোন কোন দেশের কোচ রয়েছেন সেটিও জানিয়েছিলেন পাপন। পাশাপাশি আফগানিস্তান সিরিজের আগে যে কোচ পাওয়ার সম্ভাবনা নেই সেটাও নিশ্চিত করেন তিনি। পাপন বলেন,

‘আমাদের তালিকার তিনজনের একজন দক্ষিণ আফ্রিকান, একজন অস্ট্রেলিয়ান এবং আরেকজন ইংল্যান্ডের। আর আফগানিস্তান সিরিজের আগে হেড কোচ পাওয়ার কোনো সম্ভাবনাই নেই। আশা করি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগে নিয়োগ দেওয়া যাবে। আমরা কারস্টেনের অপেক্ষায় আছি। আশা করি জুনের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই আপনারা কোচ নিয়োগের বিষয়টি দৃশ্যমান হতে দেখবেন।

 

বাংলাদেশের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান কে, গ্রিনিজ জানতে চাইলে হাত তোলেন তামিম ইকবাল

বাংলাদেশ ক্রিকেটে এক গুরত্বপূর্ন ব্যাক্তি বলা চলে গ্রিনিজকে। বাংলাদেশ দলকে প্রথম চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জেতান তিনি। তার অধীনেই বাংলাদেশ দল হারায় সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন পাকিস্তবনাকে। সেই গ্রিনিজেই বাংলাদেশে আসেন নিজের এক ব্যাক্তিগত কাজে। ব্যাক্তিগত কাজে এসে গ্রিনিজ দিয়ে গেলেন মাশরাফিদের কিছু মূল্যবান বক্তব্য।

বিসিবির একাডেমি মাঠে দাঁড়িয়ে ক্রিকেটারদের কাছে ডেকে অনেক কথাই বলেছেন গ্রিনিজ। বিশেষভাবে বলেছেন ম্যাচের সময় খুব বেশি মনযোগী থাকতে। কিংবদন্তি ব্যাটসম্যানের কথা মনোযোগ দিয়ে শুনেছেন আফগানিস্তান সিরিজের জন্য ক্যাম্পে থাকা ক্রিকেটাররা।

গ্রিনিজ ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওপেনিং ব্যাটসম্যান। ম্যাচে সাফল্যের পেছনে ওপেনারের বড় ভূমিকার কথা বললেন। বাংলাদেশের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান কে, গ্রিনিজ জানতে চাইলে হাত তোলেন তামিম ইকবাল। গ্রিনিজ বোঝান, একটা ম্যাচে ভালো করতে হলে ওপেনিংয়ে ভালো করাটা অনেক জরুরী। এটিই ম্যাচের গতিপথ নিয়ন্ত্রণ করে।

ক্রিকেটারদের প্রতি শুভকামনা জানিয়ে গ্রিনিজ বলেন, ‘কঠোর পরিশ্রম করে যাও, ফল মিলবেই। আশা করি তোমরা সফল হবে এবং বাংলাদেশকে অনেকদূর নিয়ে যাবে।’

উল্লেখ্য ৫ দিনের সফরে বাংলাদেশে এসে গ্রিনিজ কাজ করছেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের সাথে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close