আন্তর্জাতিক ফুটবলফুটবল

সেই গোলটির জন্য এখনো আক্ষেপ করেন মেসি

২০১৪ বিশ্বকাপের খুব সামনে গিয়েও শেষ মূহুর্তে গিয়ে ম্যাচটি হাতছাড়া করে মেসির দলে আর্জেন্টিনা। অথচ সেই ম্যাচে আর্জেন্টিনার সামনে আসে ভুরিভুরি সুযোগ। সেই ম্যাচে হিগুয়েনের সাথে গোল মিস করেছিলেন মেসি নিজেও।

সেই একটি গোলের আক্ষেপ এখনো পোড়ায় মেসিকে। আর্জেন্টাইন এক টিভি চ্যানেলের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে জার্মানদের বিপক্ষে ফাইনালের সেই গোলের সঙ্গে মেসি টেনেছেন চেলসির গোলও। আফসোস করে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমি এখনো বিশ্বকাপ ফাইনালের মিস করা সুযোগটা নিয়ে ভাবি। যেভাবে আমি বলটিকে মেরেছিলাম, যেভাবে পা নামিয়েছিলাম মাটিতে, আমি জানি না এত বাজে শেষ আমি কীভাবে করেছিলাম। আমার মনে হয় চেলসির বিপক্ষে যেভাবে গোল পেয়েছি সেভাবে মারলেও বলটা পোস্টেই থাকত।’

সেদিন মেসিকে হেঁটে যেতে হয়েছিল বিশ্বকাপের পাশ দিয়ে, দেখেছেন জার্মানদের শিরোপা নিয়ে উৎসব। ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফুটবলারের আজও মনে পড়ে সেই দৃশ্য, ‘বিশ্বকাপ শিরোপার পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়াটা আমার জন্য হৃদয়বিদারক। এ ঘটনা আমার জন্য একটা ভয়ানক অভিজ্ঞতা। খুব কাছেই তো গিয়েছিলাম আমরা, তবুও পারিনি সে কাপ জিততে!

 

‘বিপিএলের কারনেই রশিদের বিপক্ষে আমাদের খেলতে কোন সমস্যা হবে না’

প্রেয়ায় দুই মাস পরে আবারো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। বাংলাদেশ দল টি২০ সিরিজ খেলবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। সেই ম্যাচে বাংলাদেশ দলের ভাবন আফগানিস্তানের স্পিন অ্যাটাক।

কেননা আফগানিস্তানের স্পিন অ্যাটাকে আছে রশিদ-মুজিবের মতো তারকা ক্রিকেটাররা। তবে এই নিয়ে চিন্তিত নন মিরাজ। মিরাজ বলেন,’ আসলে আফগানিস্তানের অবশ্যই স্পিন অ্যাটাক অনেক ভালো। তবে আমাদেরও যথেষ্ট অভিজ্ঞতা রয়েছে। বিশেষ করে সাকিব ভাই আছে, এরপরে রিয়াদ ভাইও ভালো বোলিং করে। এছাড়া যারা আছে পেস বোলার। সবমিলিয়ে বলবো যে আমাদের ওভারওল স্পিন এবং পেস কম্বিনেশন ভালোই আছে। আমাদের দলে অনেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার আছে। এটা আমাদের অনেকটাই এগিয়ে রাখবে।’

মিরাজ আরো বলেন ,’ রশিদ খানের সাথে তিনি একসাথে খেলছেন, অনুশীলন করেছেন এটাও অনেক বড় সুবিধা হবে। আর বিশেষ করে রশিদ খান তো আমাদের দেশে প্রিমিয়ার লিগে খেলেছেন, আমাদের ব্যাটসম্যানেরা সবাই ওর বিপক্ষে ভালো জানে। সুতরাং আমার মনে হয় না যে খুব বেশি সমস্যা হবে ইনশাল্লাহ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close