আন্তর্জাতিক ক্রিকেটক্রিকেট

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন পিটার বোরেন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন নেদারল্যান্ডসের অধিনায়ক পিটার বোরেন। ডাচদের হয়ে ৩৭ টি-টোয়েন্টির পাশাপাশি ৩১টি ওয়ানডে’তে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

তার বিদায়ে নেদারল্যান্ডসের নতুন অধিনায়ক হয়েছেন পিটার শিলার। বোরেন’কে শুভকামনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে র‌য়্যাল ডাচ ক্রিকেট এসোসিয়েশন। নিউজিল্যান্ডে

জন্ম নেয়া বোরেন ২০০৬ সালের জুনে, ডেনমার্কের বিপক্ষে নেদারল্যান্ডসের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু করেন। ১২ বছরের ক্যারিয়ারে ৫৮টি ওয়ানডে ও ৪৩টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন বোরেন।

 

গেইলের চেয়েও ধ্বংসাত্মক সেঞ্চুরি হাঁকালেন ওয়াটসন!

 

গেইলের চেয়েও ধ্বংসাত্মক সেঞ্চুরি হাঁকালেন ওয়াটসন! যদিও পথটা দেখিয়ে দিয়েছিলেন ক্রিস গেইল। গতকাল বৃহস্পতিবার চলতি আইপিএলের একাদশ আসরে প্রথম সেঞ্চুরি উপহার দেন ক্যারিবীয় দানব।

তার অপরাজিত সেই ইনিংসে ভর করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে প্রথম হারের স্বাদ দেয় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। তারপর থেকেই চলে আসছে গেইল স্তুতি। আজ যেন গেইলকেও ছাড়িয়ে গেলেন শেন ওয়াটসন।

টসে জিতে চেন্নাই সুপার কিংসকে ব্যাটিংয়ে পাঠানোটাই সম্ভবত কাল হলো রাজস্থান রয়্যালসের জন্য। আম্বতি রাইডুর সঙ্গে ওপেন করতে নেমে ৫৭ বলে ১০৬ রানের দানবীয় ইনিংস খেললেন এই অস্ট্রেলীয়।

৯টি চারের পাশাপাশি ৬টি ছক্কা। তিন অংকে পৌঁছেছেন মাত্র ৫১ বলে। যেখানে টি-টোয়েন্টির ‘ইউনিভার্স বস’ গতকাল ৫৮ বলে তিন অংক স্পর্শ করেছিলেন।

একমাত্র শ্রেয়াস গোপাল ছাড়া (৪ ওভারে ২০ রান) প্রায় সবাই বেদম পিটুনির শিকার হয়েছেন। এক স্টুয়ার্ট বিনিই ২ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে বসেছেন। বাউন্ডারি খেয়েছেন ৭টি। তবে ছক্কার ঝড় গেছে কৃষ্ণাপ্পা গৌতম আর জয়দেব উনাদকাটের ওপর দিয়েই।

নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ২০৪ রান তুলেছে ধোনির চেন্নাই। এতে সুরেশ রায়নার ২৯ বলে ৪৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন সুরেশ রায়না। ডিজে ব্র্যাভোও ১৬ বলে ২৪ রান করেন।

 

মেসিকে আঘাত করলে আর্জেন্টিনা যাওয়ার রাস্তাই বন্ধ হয়ে যাবে

ক্লাব ফুটবলের সুবাদে জাতীয় দলের সতীর্থরা অহরহ প্রতিপক্ষ বনে যান। বনে যান শত্রুও। এই যেমন বার্সেলোনার লিওনেল মেসি ও সেভিয়ার গ্রাব্রিয়েল মারকেদো। জাতীয় দলের হয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে খেললেও ক্লাব ফুটবলের লড়াইয়ে একে অন্যের প্রতিপক্ষ হিসেবেই মাঠে নামবেন তারা।

গত বছর বার্সেলোনার কাছে হেরেই কোপা দেল রের শিরোপা হাতছাড়া হয় সেভিয়ার। বছর ঘুরে আবারও কোপা দেল রের ফাইনাল, প্রতিপক্ষ সেই বার্সেলোনাই। প্রতিশোধের ম্যাচে জিততে মরিয়া সেভিয়াও। তবে ফাইনাল জয়ের অন্যতম প্রধান শর্ত, মেসিকে আটকাতেই হবে সেভিয়ার।

এটা জানেন সেভিয়ার রক্ষণভাগের প্রহরী মারকেদোও। তবে তিনি এও জানেন, মেসিকে আটকানোর চেষ্টায় ভুলেও তাকে আঘাত করা যাবে না। অন্যথায় আর্জেন্টিনাতে যাওয়ার রাস্তাই বন্ধ হয়ে যাবে বলে মনে করেন সেভিয়ার আর্জেন্টাইন এই ডিফেন্ডার।

২২ এপ্রিল অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানো স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা এবং সেভিয়া। তার আগে মেসিকে আটকানো প্রসঙ্গে মারকেদো বলেন, ‘আমি তাকে আঘাত করতে পারবো না। যদি আমি তা করি তবে আমার আর্জেন্টিনা যাওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যাবে। মেসিকে পেছন থেকে ধরা সম্ভব নয়। আবার যদি একা একা তার সামনে থাকো তবে সে ফাঁকি দিয়ে বেরিয়ে যাবে। সে মাঠে শুধু বিপক্ষ দলকে কাঁদিয়ে গোল দিতে জানে।’

তাই বলে ছাড় দিবেন তাও কিন্তু নয়। এ নিয়ে ৩১ বছর বয়সী রক্ষণভাগের এ খেলোয়াড়ের ভাষ্য, ‘কোনো সন্দেহ নেই, মেসিই বিশ্বের সেরা ফুটবলার। আমরা রক্ষণে বার্সাকে সামলানোর জন্য অনেক কাজ করছি। ফাইনালের শিরোপা জিততে চাই আমরা। এটা আমাদের থেকে ছিনিয়ে নিতে আসলে আমরা ছেড়ে কথা বলব না।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close