আন্তর্জাতিক ক্রিকেটক্রিকেট

‘এক-দুই ম্যাচ দেখে নতুনদের মূল্যায়ন করলে হবে না’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলে নতুনদের ছড়াছড়ি। প্রথম ম্যাচের স্কোয়াডে মোট ছয় জন খেলোয়াড় রয়েছেন যারা প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন। তারা হলেন আফিফ হোসেন, আরিফুল হক, মেহেদী হাসান, জাকির হাসান, আবু জায়েদ রাহি ও নাজমুল ইসলাম অপু। এই সিরিজেই কয়েকজনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়ে যেতে পারে।

টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল বলছেন, ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো করলেও জাতীয় দলে শুরুতে অনেকের খারাপ সময় যেতে পারে। সুতরাং, নতুনদের দু’এক ম্যাচ দেখে মূল্যায়ন করলে চলবে না। তাদের সময় দিতে।

মঙ্গলবার তামিম ইকবাল বলেন, ‘একজন খেলোয়াড় ঘরোয়া ক্রিকেটে টানা তিন চার বছর ভালো পারফরম্যান্স করে জাতীয় দলে আসার পর তার কয়েকটা ম্যাচ খারাপ যেতেই পারে। তাকে সরিয়ে দেয়াটা কোনও সমাধান হতে পারে না। তাকে সুযোগ দিতে হবে। যখন একজন খেলোয়াড়কে দলে ডাকা হয় তখন তার সক্ষমতা আছে এই কথা বিবেচনা করেই দলে ডাকা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘নতুন যারা দলে সুযোগ পেয়েছে তাদের দুই-তিন জনের নাম আমি নির্দিষ্ট করে বলতেই পারি। রাহি বিপিএলের সর্বশেষ দুই আসরে উইকেটশিকারিদের তালিকায় উপরের দিকে ছিল। আরিফুল হকও বিপিএলের সর্বশেষ দুই-তিন আসরে ভালো খেলেছে। মেহেদী তো বিপিএলে আমার সাথেই খেলেছে। ওর হৃদয় খুব বড়। আমি মনে করি, ওকে দুই-চার ম্যাচ দেখে মূল্যায়ন করাটা ঠিক হবে না।’

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি মিরপুরে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ। ১৮ ফেব্রুয়ারি সিলেটে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ ম্যাচ। দুইটি ম্যাচই শুরু হবে বিকাল পাঁচটায়।

মাশরাফি-নাসিরদের তিনে তিন!

মাশরাফি-নাসিরদের তিনে তিন! চলমান ডিপিএলের প্রথম তিন রাউন্ডে টানা তিন দাপুটে জয় তুলে নিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থান নিজেদের দখলে নিয়েছে মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বাধীন আবাহনী লিমিটেড। তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে আজ মাশরাফিরা হারিয়েছে ১৩৬ রানের বিশাল ব্যবধানে।

টস হেরে আগে ব্যাট করে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সাইফ হাসানের শতকে (১০৮) চড়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ২৬৭ রানের লক্ষ্যমাত্রা ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ছুড়ে দেয় আবাহনী লিমিটেড। জবাবে ব্যাট করতে নেমে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ৩৫.৪ ওভারে ব্রাদার্সের ইনিংস থামে ১৩০ রানে।

রান তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে জুনায়েদ সিদ্দিক ও মিজানুর রহমান ৫০ রানের জুটি গড়ে ইতিবাচক কিছুর ইঙ্গিত দিলেও তা ভেস্তে যায় এ জুটি বিচ্ছিন্ন হওয়ার সাথেই। ২৪ রান করে সানজামুল ইসলামের প্রথম শিকারে পরিণত হয়ে সাজঘরে ফিরেন জুনায়েদ সিদ্দিক। বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যানকে দিয়ে নিজের খাতা খোলার পর আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান মিজানকেও ২৪ রানে ফিরিয়ে দিয়ে ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করার পথে হাঁটেন এ স্পিনার।

এরপর সানজামুলের সাথে উইকেট উৎসবে যোগ দেন আরও দুই স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাকলাইন সজীব। তাদের ঘূর্ণি জাদুতে একের পর উইকেট হারাতে থাকে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। এক পর্যায়ে ৮৪ রানের মধ্যে ৮ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় দলটি। ১০০ রানের নিচে অল-আউট হওয়ার শঙ্কা জাগলেও ইয়াসির আলীর প্রচেষ্টা ও ওয়াহিদুল আলমের শেষ দিকের ১৫ রানের ইনিংসের কল্যাণে এ লজ্জার হাত থেকে রেহাই পায় দলটি।

ইয়াসির আলি ৩৫ রানে অপরাজিত থাকলেও যোগ্য সঙ্গের অভাবে দলের হার এড়াতে ব্যর্থ হন তিনি। আর ৩৫.৪ ওভারে ১৩০ রানে থামে ব্রাদার্সের ইনিংস। আবাহনীর বোলারদের মধ্যে ২৪ রানে মিরাজ তিনটি, ২৮ রান খরচায় সানজামুল তিনটি, ৮ রান দিয়ে সাকলাইন দুটি ও ২১ রানে নাসির নেন একটি উইকেট।

এর আগে ব্যাট করে এনামুল হক ও সাইফ হাসানের ৮৪ রানের জুটিতে উড়ন্ত সূচনা পেলেও ম্যাচ বাড়ার সাথে সাথে মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ২৬৬ রানে থামে আবাহনীর ইনিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১০৮ রানের ইনিংস আসে সাইফ হাসানের ব্যাট থেকে। ১৩২ বল মোকাবেলায় ৬ চার ও ৫ ছয়ে এ রান করেন সাইফ। তাছাড়া এনামুল হক বিজয় ৪১, নাজমুল হোসেন শান্ত ৩৮, নাসির হোসেন ৩১ রান করেন।

প্রতিপক্ষ শিবিরের বোলারের মধ্যে খালেদ আহমেদ ও রনি হোসেন দুটি করে উইকেট লাভ করেন। তাছাড়া অলক কাপালি ও সোহরাওয়ার্দী শুভ নেন একটি করে উইকেট।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close