ক্রিকেটবাংলাদেশ ক্রিকেট

আপনি কি ভাই দেখেছেন আমি কাউকে মেরেছি: সাব্বির

নেতিবাচক ঘটনায় আবারো আলোচনায় সাব্বির রহমান। জাতীয় দলের এই ব্যাটসম্যানের বিরুদ্ধে এক কিশোরকে পিটানোর অভিযোগ উঠেছে। তবে এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে চাননি সাব্বির। বরং এ ঘটনার জন্য গণমাধ্যমকেই দায়ী করছেন তিন। সাব্বির বলেন, ‘হুদায় আপনারা (সংবাদকর্মী) তিলকে তাল বানান।

কিশোর পিটানো প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সাব্বির বলেন, ‌‘আপনি কি ভাই দেখেছেন আমি কাউকে মেরেছি।’ ঘটনার সত্যতা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে এবার বলেন, ‘ কিছু না ভাই…নাথিং।’ এরপরই বললেন, ‘লিভ ইন ব্রো, ওকে। ’

২১ ডিসেম্বর রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে জাতীয় লিগের শেষ রাউন্ডে রাজশাহী বিভাগ-ঢাকা মেট্রোর ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে লাঞ্চের ঘণ্টা খানেক পর কিশোরকে পিটানোর ঘটনাটি ঘটেছে। সাব্বির খেলেছেন রাজশাহীর হয়ে। তখন ঢাকা মেট্রো প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করছে।

জানা যায়, ড্রেসিংরুম থেকে নেমে মাঠের দিকে যাচ্ছিলেন সাব্বির। এ সময় গ্যালারি থেকে তাঁকে উদ্দেশ্যে করে এক কিশোর দর্শক ‘ম্যাঁও’ বলে চিৎকার করেছিল। খেলা চলার সময় পরিচিত কাউকে দিয়ে ওই দর্শককে ধরে আনেন সাব্বির। মাঠের দুই আম্পায়ার গাজী সোহেল ও তানভীর আহমেদের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে খেলা ফেলেই সাইটস্ক্রিনের পেছনে ১০-১২ বছর বয়সী ওই কিশোর দর্শককে মারধর করেন তিনি।

বেলা ৪টার সময় ম্যাচ রেফারি শওকাতুর রহমানকে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানান রিজার্ভ আম্পায়ার শওকত আলী। পরের দিন সাব্বির ও দলের ম্যানেজারকে ডাকেন ম্যাচ রেফারি। তখনও আম্পায়ারের সাথে খারাপ আচরণ করেন সাব্বির। ওইদিনই তার বিরুদ্ধে গুরুতর শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ এনে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটিতে প্রতিবেদন জমা দেন ম্যাচ রেফারি শওকাতুর রহমান।

ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির প্রধান আকরাম খান জানিয়েছেন, প্রতিবেদনটা ইতিমধ্যে শৃঙ্খলা কমিটিকে তিনি দিয়ে দিয়েছেন। ডিসিপ্লিনারি কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান শেখ সোহেল বলছেন, প্রতিবেদন দেখে যদি মনে হয় ওকে ডাকার প্রয়োজন নেই, তাহলে আমরা দ্রুত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেব। ’

প্রসঙ্গত, কোনো খেলোয়াড় মাঠে কাউকে লাঞ্ছিত করলে শাস্তি হিসেবে সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা ও ঘরোয়া লিগে কয়েকটি ম্যাচ নিষিদ্ধ হওয়ার নিয়ম রয়েছে।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত বিপিএলের পঞ্চম আসরে আম্পায়ারকে গালি দিয়ে দেড় লাক টাকা জরিমানা গুনেছেন সাব্বির। তার আগের বিপিএলে নারী কেলেঙ্কারিতে ১৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় তাকে। একের পর এক নেতিবাচক ঘটনার জন্ম দেওয়া এ ক্রিকেটার কবে শুধরাবেন নিজেকে? এমনটাই প্রশ্ন ক্রিকেটপ্রেমীদের।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close