ক্রিকেটবাংলাদেশ ক্রিকেটবিপিএল

মালিকপক্ষের বিনিয়োগের তুলনায় লাভ কতটুকু?

লিগের পঞ্চম আসরের ফাইনালে ক্রিস গেইলের ঝড়ো সেঞ্চুরি ম্যাককুলামের অসাধারণ ব্যাটিং নৈপুন্যের পাশাপশি মাশরাফিদের বোলিং কারিশমায় প্রথম বারের মতো শিরোপা ঘরে তুললো রংপুর রাইডার্স। সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডাইনামাইটসের বিপক্ষে ৫৭ রানের বিশাল জয় পেয়েছে মাশরাফি বাহিনী। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় মুখোমুখি হয় মাশরাফি বিন মর্তুজার রংপুর রাইডার্স ও সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডাইনামাইটস।

টসে জিতে রংপুরকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ঢাকা। টস হেরে নির্ধারিত ২০ ওভার খেলে ১ উইকেট হারিয়ে ২০৬ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর করে রংপুর রাইডার।জবাবে ঢাকা ব্যাট হাতে করে ১৪৯.রান ।নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় ঢাকা । ঢাকার শুরুতে বিপর্যয়ে ফেরে মারুফ এর পরে একে এরক আসা যাওয়ার মিছিরে ব্যাস্ত সকল ব্যাটসম্যান। জহুরুল ফিফটি কোন কাজেই আসেনি ।কেবল ঢাকার পরাজয়ের ব্যাবধানের কমিয়েছে ।

রংপুর চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য পেল বিসিবির কাছ থেকে পেল ২ কোটি টাকার চেক যা অধিনায়ক মাশরাফির হাতে তুলে দেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন!তবে মালিকপক্ষের বিনিয়োগের তুলনায় লাভ কতটুকু? সে এক বড় প্রশ্ন।

তিনি নেতা, তিনি প্রেরণা, তিনি শক্তি। মাশরাফি বিন মর্তুজা একটি নাম, যার তুলনা তিনি শুধু নিজেই। মাশরাফি কেন আর দশজনের থেকে আলাদা সেটা এর আগেও অনেকবার মানুষ দেখেছে। দেখলো আরও একবার। বিপিএলের সব মিলিয়ে পাঁচটি আসর শেষ হলো। এর মধ্যে চারবারই চ্যাম্পিয়ন দলের অধিনায়ক মাশরাফি!

দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয়া, উজ্জীবিত রাখার সঙ্গে খেলোয়াড়দের অনুপ্রেরণা জোগানোর বেলায় মাশরাফির মত দ্বিতীয়টি কেউ নেই। তাই তো তার অধীনেও মন খুলে খেলতে পারেন গেইল-ম্যাককালামের মত বিশ্ব ক্রিকেটের বড় তারকারা। অবলীলায় তারা মেনে নেন মাশরাফির শ্রেষ্ঠত্ব।

সহযোদ্ধাদের সাহস জোগানো, ফর্মহীন পারফরমারকে ফর্মে ফেরাতে সাহস, আস্থা ও আত্মবিশ্বাসী করে তোলাই শেষ নয়। মাঠেও ‘ক্যাপ্টেন’ মাশরাফি দারুণ পারফরমার। বিপিএলেও অধিনায়ক মাশরাফি সবার সেরা।

বিপিএলের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক মাশরাফি। প্রথম তিন আসরের চ্যাম্পিয়ন দলের অধিনায়ক নড়াইলের সাহসী সেনাপতি। তার নেতৃত্বে ঢাকা গ্লাডিয়েটর্স বিপিএলে প্রথম দু’বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সও তৃতীয় বিপিএলে শেষ হাসি হাসে মাশরাফির হাত ধরেই। এবার হাসলো রংপুর রাইডার্স।

আর কোন অধিনায়কের এমন সাফল্য ও কীর্তি নেই। পর পর তিন বিপিএলের ফাইনালে প্রধান অতিথির হাত থেকে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি নেয়া গর্বিত অধিনায়ক মাশরাফি শুধু গতবারই শেষ হাসি হাসতে পারেননি। তার নেতৃত্বে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ২০১৬ সালে শেষ চারে নাম লেখাতে পারেনি।

এবার দল পাল্টে নতুন শিবিরে যোগ দেন মাশরাফি। দলের নাম নয়। শিরোপা জেতার জন্য যে তার নামটিই যথেষ্ট, সেটা আরও একবার বুঝিয়ে দিলেন বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক। প্রথম ও একমাত্র অধিনায়ক হিসেবে চার চার বারের শিরোপা জয়ী অধিনায়ক হলেন। মাশরাফির পক্ষেই এমন কীর্তি গড়া সম্ভব!

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close